An educational blog that provides Current Affairs in Bengali pdf, Bengali Gk, Current GK MCQ, and all study materials for Competitive Examination for Government Jobs in West Bengal, India.

Article 370 facts in Bengali

Article 370 facts in Bengali

Article 370 and 35 A is a historical article for India Pakistan and Jammu Kashmir. Let us know the insight of Article 370 and 35 A in Bengali. what is Article 370? what is 35 A ? these all questions are comprehensively explained in this post in Bengali.

Article 370 facts in Bengali
Article 370 facts in Bengali

370 ধারা টি আসলে কি ?

370 ধারা 1949 সালের 17 ই অক্টোবর সংবিধানে অন্তর্ভুক্ত হয়। 
370 ধারা অনুযায়ী জম্মু-কাশ্মীর কে ভারতীয় সংবিধানের আওতামুক্ত রাখা হয় জম্মু কাশ্মীর কে নিজস্ব সংবিধান তৈরি করার অনুমতি দেওয়া হয় অর্থাৎ ওই রাজ্যের সংসদ বিশেষ ক্ষমতা দেখাতে পারবে না।  সংসদের ক্ষমতা সীমাবদ্ধ যে কোন কেন্দ্রীয় আইন বলবৎ রাখার জন্য শুধুমাত্র রাজ্যের মতামতের প্রয়োজন। 

জম্মু-কাশ্মীরের সংসদ প্রতিরক্ষা পররাষ্ট্র ও যোগাযোগ এই তিনটি বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার ব্যাপারে ক্ষমতাধর ভারতভুক্তি শর্ত অনুযায়ী।

জম্মু-কাশ্মীরের সংবিধানের 5 নম্বর উপধারায় রাজা হরি সিং স্পষ্ট ভাবে উল্লেখ করেছিলেন যে তার সম্মতি ছাড়া এই রাজ্যের ভারত ভুক্তি কোন আইনের মাধ্যমে বদলানো যাবে না এবং 7 নম্বর ধারা অনুযায়ী এই ভারত ভুক্তির শর্তগুলো ভবিষ্যতেও কোনো সংবিধানের মাধ্যমে বদলাতে বাধ্য করা যাবে না। 



জম্মু-কাশ্মীর কিভাবে ভারতের সাথে যুক্ত হলো ?

370 নং ধারা সম্পর্কে জানতে গেলে আগে আমাদের জানতে হবে জম্মু কাশ্মীর কিভাবে ভারতের সাথে যুক্ত হলো। আসলে প্রথমে রাজা হরি সিং ঠিক করেন যে তিনি ও তার রাজ্য স্বাধীন থাকবেন জম্মু-কাশ্মীর সুইজারল্যান্ড এর মত একটি স্বাধীন দেশ হবে এবং সেই অনুযায়ী ভারত ও পাকিস্তানের সাথে চুক্তি হয় উভয়েই সেই চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

কিন্তু এরপর পাকিস্তান শহীদের অনুপ্রবেশ বন্ধ করার জন্য হরি সিং ভারতের সাহায্য চান ফলে জম্মু-কাশ্মীর ভারতের সাথে যুক্ত হয় এই চুক্তি স্বাক্ষর করেছিলেন 1947 সালের 26 শে অক্টোবর লর্ড মাউন্টব্যাটেনও  সাথে সাথেই এই চুক্তি অনুমোদন করেন।

ভারত বলল নির্দিষ্ট কোন শাসকের মতামতের ভিত্তিতে ভারত ভুক্তির এই বিষয়ে স্থির হতে পারে না তাই তৎকালীন ভারতের প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহেরু সরদার বল্লভ ভাই প্যাটেল এবং এন গোপাল স্বামী আর প্রজন্ম কাশ্মীরের প্রধান মন্ত্রী শেখ আব্দুল্লাহ কে চিঠি লিখলেন যে ভারত সরকার মনে করে বা ভারত সরকারের স্থির সিদ্ধান্ত হলো জম্মু কাশ্মীরের সংবিধান সিরাজের অধিবাসীদের নিয়ন্ত্রণাধীন।




তাহলে 370 ধারা কার্যকর হলো কিভাবে ?

তৎকালীন 306 এ ধারা (বর্তমানে 370 ধারা) অনুযায়ী গণপরিষদে এই প্রস্তাব পেশ করা হয়েছিল যে  যদিও জম্মু কাশ্মীর ভারতের অন্তর্গত হয়েছে তা সত্বেও পরিস্থিতি অনুযায়ী গণভোট নেওয়া হতে পারে তাতে যদি এই ভারত অন্তর্ভুক্তির বিষয়টি গৃহীত না হয় তাহলে ভারত কাশ্মীর কে ভারত থেকে বিচ্ছিন্ন হওয়ার পথে কোন বাধা সৃষ্টি করবে না।

370 ধারা কি নির্মূল করা সম্ভব ?

রাষ্ট্রপতির আদেশ অনুযায়ী নির্মূল করা সম্ভব কিন্তু তাতে জম্মু-কাশ্মীরে গণপরিষদের সম্মতি প্রয়োজন।

কিন্তু যেহেতু 1957 সালের 26 শে জানুয়ারি গণপরিষদের বিলুপ্তি ঘটেছে তাই এটা আর সম্ভব নয়।

ভারতের সংবিধানের 370 ধারার বিশেষ মর্যাদা বা তাৎপর্য

370 ধারার 1 নম্বর অনুচ্ছেদের লেখা রয়েছে যে জম্মু-কাশ্মীর কে ভারতের রাজ্যগুলির তালিকায় রাখা হয়েছে এবং 370 ধারা অনুযায়ী জম্মু কাশ্মীরের সংবিধান কার্যকর হবে। 

370 ধারায় তিন নম্বর অনুচ্ছেদ অনুযায়ী জম্মু কাশ্মীর রাজ্যের জনগণ স্থায়ী বাসিন্দা হিসেবে স্বীকৃত নাগরিক হিসেবে নয়। 



370 এর 35 এ ধারা

370/35 এ ধারা অনুযায়ী কাশ্মীরে কোন বেসরকারিকরণ সম্ভব নয় বাইরের কোন বেসরকারি সংস্থা কাশ্মীরে ইনভেস্টমেন্ট করতে পারে না সরাসরি কারণ তাদের তো সেখানে জমি কেনার ই অনুমতি নেই আর সেই সুযোগটা বাগিয়ে নিয়েছে আব্দুল্লাহ মুক্তি পরিবারগুলি যেহেতু তাদের কোন বাইরের প্রতিযোগী নেই তাই ব্যবসার ক্ষেত্রেও তারা তাদের ইচ্ছামত ছড়ি ঘোরায় জিনিসপত্রের দাম নিজেদের ইচ্ছামত বাড়িয়ে দেয়।

370 নম্বর ধারার বর্তমান অবস্থা

ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সম্প্রতি ঘোষণা করলেন যে বহুদিন ধরে বিতর্কিত সমস্যা অর্থাৎ জম্মু কাশ্মীর নিয়ে যে সমস্যা সেই সমস্যা সমাধান করতে জম্মু-কাশ্মীর কে আলাদা আলাদা দুটি রাজ্য জম্মু ও কাশ্মীর এবং  লাদাখ এ  বিভক্ত করা হল। সংশ্লিষ্ট ধারাটি তুলে নেওয়ার ফলে ভারতের উত্তরাংশ অর্থাৎ জম্মু ও কাশ্মীর ভারতের সাথে স্থায়ীভাবে যুক্ত হল এবং ওই দুটি বিভক্ত অংশ কেন্দ্র শাসিত রাজ্জে পরিনত হল। অর্থাৎ ওই দুতি রাজ্যকে সরাসরি কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা নিয়ন্ত্রন করবে। এবং ওই অঞ্চলের রাজনৈতিক দলগুলির কোনো  অধিকার রইল না।এর পর থেকে জম্মু ও কাশ্মীরের কোনও আলাদা সংবিধান রইল না এবং কোনো আলাদা পতাকা রইল না। অবশেষে এই কথাই বলা যায় যে বহুদিন পর জম্মু ও কাশ্মীর ভারতবর্ষের সাথে স্থায়িভাবে যুক্ত হল। 


370 নং ধারা একনজরে 

রাষ্ট্রপতি আদেশ এর সাহায্যে জম্মু কাশ্মীর এর জন্য তৈরি বিশেষ ধারা 370 35 A কে কেন্দ্র সরকার বাতিল করার প্রস্তাব আনল
• 5 আগস্ট ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ রাজ্যসভায় এই বিল উত্থাপন করলেন

370 নং ধারা নির্মূল বা বাতিল হয়ে গেলে কি হবে ?

জম্মু-কাশ্মীরের আলাদা আলাদা পতাকা ছিল তাই ভারতের রাষ্ট্রীয় পতাকাকে সম্মান করার জম্মু-কাশ্মীরের নাগরিকদের কাছে অনিবার্য ছিল না
কিন্তু 370 নম্বর ধারা বাতিল হওয়ার পর জম্মু-কাশ্মীরের পতাকা আর আলাদা আলাদা থাকবে না এবং ভারতের রাষ্ট্রীয় পতাকা কে জম্মু-কাশ্মীরের নাগরিকদের অবশ্যই সম্মান করতে হবে
জম্মু-কাশ্মীরের মানুষদের দুটি নাগরিকত্ব ছিল জম্মু কাশ্মীর ভারতের
370 নম্বর ধারা বাতিল হওয়ার পর জম্মু কাশ্মীরের লোকেদের শুধুমাত্র একটি নাগরিকত্ব থাকবে এবং সেটি হল ভারতের নাগরিকত্ব
• 370 নম্বর ধারা অনুযায়ী জম্মু কাশ্মীরের লোক ভারতের কোন সাধারণ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারত না অর্থাৎ ভোট দিতে পারত না
• 370 নম্বর ধারা বাতিল হয়ে গেলে জম্মু-কাশ্মীরের লোক ভারতে যে কোন সাধারণ নির্বাচনে ভোট দিতে পারবেন
জম্মু-কাশ্মীরে সুপ্রিম কোর্টের কোনো আদেশ মান্য হতো না
370 নম্বর ধারা বাতিল হলে জম্মু-কাশ্মীরের সুপ্রিম কোর্টের আদেশ মান্য হবে
ভারতীয় নাগরিক জম্মু-কাশ্মীরে কোন জমি কিনতে পারতো না
370 নম্বর ধারা বাতিল হলে ভারতীয় নাগরিকরা জম্মু-কাশ্মীরে জমি কিনতে পারবে

অনুচ্ছেদ 35 A

এটি 1954 সালে রাষ্ট্রপতিরা দেশে সংবিধানের সাথে যুক্ত করা হয়েছিল
• 14 মে 1954 সালে বা তার 10 বছর আগে থেকে যারা ওখানে থাকতো তাদেরই ওখানকার নাগরিক হিসেবে মানা হত
370 ধারা কিভাবে নির্মূল করা সম্ভব হলো যেখানে সুপ্রিম কোর্টের আদেশ চলতো না ?
370 নং ধারা
অনুচ্ছেদ 1 : জম্বু কাশ্মীর ভারতের অন্তর্গত
অনুচ্ছেদ 2 : -
অনুচ্ছেদ 3 : এখানে বলা হয়েছিল 370 ধারা রাষ্ট্রপতি আদেশ এর সাহায্যে নির্মূল করা সম্ভব কিন্তু তার জন্য জম্মু কাশ্মীরের সংবিধান সভার অনুমতি আবশ্যক

জম্মু কাশ্মীর

জম্মু কাশ্মীরকে দুটি পৃথক পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভাগ করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে 

(1) জম্মু কাশ্মীর

বিধানসভা থাকবে
উপরাজ্যপাল থাকবে

(2) লাদাখ

বিধানসভা থাকবে না
রাজ্যপাল থাকবে
অমিত শাহ এই জম্মু-কাশ্মীর পুনর্সংগঠন এর বিলটি রাজ্যসভায় পেশ করেছিলেন
এই নিয়ে ভারতে মোট নয়টি কেন্দ্র শাসিত অঞ্চল হবে

370 ধারা নির্মূল এর সুবিধা

সারা ভারতবর্ষের লোক এখন জম্মু-কাশ্মীরে থাকতে পারবেন ব্যবসা বাণিজ্য করতে পারবেন
সেনাদের প্রতি অর্থনৈতিক ব্যয় কম হবে
জম্মু-কাশ্মীরের সার্বিক উন্নয়ন দ্বিগুণ হয়ে যাবে


যদি তোমরা এই ৩৭০ নং ধারা সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জেনে থাকো অবশ্যই কমেন্ট করে সবাইকে জানিও।  আর এই পোস্ট টা ভালো লাগলে সবার সাথে শেয়ার করো। 







সম্পূর্ণ জুলাই মাসের কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স এর পি ডি এফ ফাইল ডাউনলোড করে নাও 

 সম্পূর্ণ 2019 এর জুন মাসের কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স এর পি ডি এফ ফাইল ডাউনলোড  করুন।
Download pdf


বাংলাতে কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স , জেনারেল সাইন্স, ভারতের ইতিহাস, ভারত ও বিশ্বের ভূগোল, ভারতীয় সংবিধান এবং মিসলেলিনিয়াস জি কে এর MCQ - CLICK HERE

২০১৮ সালের জুন মাস থেকে ২০১৯ সালের মে মাস পর্যন্ত সম্পূর্ণ এক বছরের কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স এর পি ডি এফ ফাইল ডাউনলোড করে নাও 


এছাড়াও তোমরা দেখতে পারো 
মিসসেলিনিয়াস জিকে
Recently published (New)